শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯ ইং

মনসুর হাল্লাজ সমীপে

 প্রকাশিত: ২০১৯-০১-১০ ১৭:২১:০২

মাসুদ পারভেজ:

মনসুর হাল্লাজ সমীপে

সত্যের সাথে পরম সত্যের আকাঙ্ক্ষিত সম্মিলনে
হাল্লাজের দেখা মেলে সফেদ অবয়বে

এক চোখ তোমার এমনভাবে দেখুক
যেমনি করে অন্য চোখ খুঁজে বেড়ায় বন্ধুর

মৃতের আত্মা জেগে উঠলে
ভাবনাগুলো চৌহদ্দি পেরোয়

অন্তরের গিট্টু খুলে গ্যালে আয়না দ্যাখি
ধুলোবালি পেরিয়ে ছুঁয়ে যাওয়া দিগন্ত হাতছানি দেয়

দুঃখের সাথে এসো হে সময়
প্রিয়া আমার ছেড়েছে এ পথ
এখন কেবলি নিজেকে ছাড়িয়ে
সমগ্রতায় মজার সময়

হে অনাদি সত্য,
এ লয় শ্যাষ হয়ে গ্যালে
পাখির চোখে তোমায় ভেজাবো

অর্গল পেরিয়ে গ্যালে মুখর সময়
পরম সত্যের ছোঁয়া পেয়ে গ্যালে বাঁধা দূর হয়ে যায়
তবুও এ সময় অনিঃশেষ
এ যাত্রার শেষ কোথায় ?

সূর্যের রশ্মির মতোন দীপ্ত শপথ
বিকেলের মতোন কোমল হয়ে এসো
হে প্রিয়,
সন্ধ্যা অনুরাগিণী কে বাজায়?


আগমনী সঙ্গীত, মুখরতায়
হৃদয় চৌহদ্দি পেরিয়ে গ্যালে
মনসুর হাল্লাজ ;
মনে রেখো এ নাম

হাল্লাজের কাটা মাথা থেকে ফিনকি দিয়ে বের হওয়া রক্ত
যে জমিন পবিত্র করেছিল
সে ভূমি এখন রক্তে-রক্তে গোলাপ ছুড়ে মারাদের কব্জায়

হৃদয় তার ঝঞ্জাবিভ্রাট নয়
আহত ফুলের জেগে ওঠা
শিবলির ছোড়া গোলাপে অমরত্ব মিশেছিল

মৃত্যুই হাল্লাজের পাওনা ছিল
মৃত্যুতেই অমর মনসুর হাল্লাজ

অলিগলি পেরিয়ে পথে প্রান্তরে
ধোঁয়া ওঠা চায়ের কাপে
ম্রিয়মাণ সময়ে উজ্জ্বল আলোকবর্তিকা
গেঁথে যাওয়া এক নাম মনসুর হাল্লাজ

সত্য থেকে উদঘাটিত অনলে
পুষ্পের হাসিতে
হাসতে-হাসতে, লাল প্রতিবাদ, ছোপ-ছোপ দাগ
সময় হাঁকিয়ে, কাল পেরিয়ে
ইতিহাসের আলোকে, উজ্জ্বল রঙে
এক পদচিহ্ন এঁকে দিয়েছিল –
মনসুর হাল্লাজ

দেয়াল হয়ে থাকা মুখোশজুড়ে
অবিনাশি স্লোগানে
জ্যান্ত কথাগুলো প্রাণ ফিরে যাওয়ার মহোৎসবে
হাল্লাজ বেঁচে ছিলেন –
বাঁচার মতো করে

হৃদয়ে হৃদয়ের ঘষাঘষিতে
খসে যায় অর্গল
মাহফিলের বিপুল এন্তেজামে
সত্য লুকিয়ে আসে সহসাই


সব জেনে গ্যালে ব্যর্থ মনোরথ
সব বুঝে গ্যালে নিষ্প্রাণ জীবন
তৃষ্ণা পেয়ে গ্যালে হৃদয়ের অমূল্য সুরা পান করো
যেভাবে পান করো পিয়ার হাতে শরবত

সংসার যেমন শৃঙ্গে চড়া
সুফিবাদ তেমনি দূরের পথ
টানেলের আলো সবার চোখ সয় না
হাল্লাজ বলে,
আলোর সন্ধানে তোমাদের যাত্রা কতদূর...

হাল্লাজ -
পরম সত্যের খোঁজে
জীবন বিপন্ন করে
এক ঝাঁক প্রশ্ন রেখে যাওয়া
উজ্জ্বলতম তারা

হৃদয়ের তন্তু কেটে কেটে বোগদাদ থেকে পারস্য
মক্কা থেকে ভারতবর্ষ পেরিয়ে
পারীর সৌন্দর্য স্নান হয়ে আসে
হাল্লাজের আলখাল্লায়
সেখানে মিশে আছে হাল্লাজ
বাঁধনহারা অনলের মত দাউদাউ করে
জ্বলছে তো জ্বলছে
সে পুষ্পাগুণে খাঁটি হচ্ছে সূফীবাদের গুঢ় রহস্যাদি

পিরামিডের মত সুউচ্চ খাঁজে-খাঁজে
হাল্লাজ মেতে উঠে পরম সত্যের অন্বেষণে

বিরুদ্ধ সময় হাতে পুরে
হাল্লাজ বেরিয়েছিল এ-দেশ ও-দেশ
নানা প্রান্তের ধূলি পেয়েছে ছোঁয়া
আর সময়কে জয় করে হাল্লাজ
হয়েছে অজেয়

মোল্লাতন্ত্রের পুরুতগিরি হটিয়ে দেওয়ার বাসনায়
সঁপাটে জল ঢেলে দেওয়ারা হয়েছে নিরুদ্দেশ
আর হাল্লাজ –
এতকাল পরেও অমর অক্ষয় দুর্মর

সুতোর প্যাঁচে লেগে থাকার মত
জট লেগে রয় বুক বরাবর
চোখ খুলে যায় নিমিষেই
হাল্লাজ বলে –
খোঁজো খোঁজো খোঁজো

আপনার মন্তব্য